fbpx

ডাক বিভাগের ডিজিটাল লেনদেন

ট্রেড লেটার নং: ০৪২১/উদ্যোক্তা/০০২

ট্রেড লেটার নং: ০৪২১/উদ্যোক্তা/০০২
৮ই এপ্রিল, ২০২১
বিষয়: করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সতকর্তা ও লক ডাউনকালীন অন্যান্য নির্দেশনা।
সম্মানিত উদ্যোক্তা বন্ধু,

বাংলাদেশ ডাক বিভাগের ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’-এর পক্ষ থেকে আপনাকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা। মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসকে জরুরী সেবা হিসাবে চিহ্নিত করত: বাংলাদেশ ব্যাংক এর পেমেন্ট সিস্টেম ডিপার্টমেন্ট কর্তৃক জারীকৃত সার্কুলার ০৪/২০২১ তারিখ ০৪ এপ্রিল ২০২১ অনুযায়ী, এই লক ডাউনকালীন সময়েও আপনি আপনার নগদ উদ্যোক্তা ব্যবসা পরিচালনা করতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে আপনাকে নিম্নোক্ত শর্তাবলীর পরিপালন করতে হবে:

√ নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে ‘নগদ’ সেবা প্রদান করা। ব্যবসায়ের স্থানটি নিয়মিত বিরতিতে জীবানুমুক্ত রাখা। ব্যবসায় স্থলে স্যানিটাইজার দ্রব্যাদির পর্যাপ্ত মজুদ রাখা।

আপনারা জানেন যে, দিন দিন দেশের করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বাড়ছে। এই করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে সর্বদা মাস্ক ব্যবহারের পাশাপাশি সহজ কিছু নিয়ম নীতি মেনে চললে আপনি যেমন ভালো থাকবেন, আপনার পরিবার পরিজন সহ আশে পাশের মানুষ ও তেমনি ভালো থাকবে।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে সতর্ক থাকুন!

Trade Letter

লেনদেন সংক্রান্ত সতর্কতামূলক ব্যবস্থা:
১. ব্যবসায়িক কর্মকান্ড পরিচালনায় ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করবেন না।
২. প্রতিটি লেনদেনের বিবরণী ট্রানজেক্শন বইয়ে লিপিবদ্ধ করুন এবং গ্রাহক স্বাক্ষর সংগ্রহ করুন।
৩. ৫,০০০ টাকা কিংবা তার অধিক টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে গ্রাহককে জাতীয় পরিচয় পত্রটি প্রদর্শন করতে বলুন এবং জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর ট্রানজেক্শন বইয়ে লিপিবদ্ধ করুন।
৪. সন্দেহজনক লেনদেন কিংবা আচরণের ক্ষেত্রে এস.টি.আর প্রদান করুন। (উদ্যোক্তা অ্যাপ এর মাধ্যমে)
৫. গ্রাহককে নিজ অ্যাকাউন্ট এর মাধ্যমে লেনদেন করতে বলুন।
৬. কেউ আপনার একাউন্ট এ ভুলে টাকা পাঠিয়েছে বললে অ্যাকাউন্টের ব্যালেন্স চেক করুন এবং ক্যাশ ইন করার পর ব্যালান্স চেক করে টাকা প্রদান করুন।
৭. প্রতিটি গ্রাহককে লেনদেন সম্পর্কৃত সহায়তা প্রদান উদ্যাক্তা হিসাবে আপনার নৈতিক দায়িত্ব। সহায়তা প্রদানের ক্ষেত্রে অসৎ উপায় অবলম্বন করা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

লেনদেন সংক্রান্ত হালনাগাদ তথ্য:
করোনা সংক্রামণ এর জন্য চলাচলের বিধিনিষেধ থাকায় মোবাইল ব্যাকিং এর লেনদেনের ক্ষেত্রে পরিবর্তন নিয়ে এসেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এই সময়ে গ্রাহকরা নিজের অ্যাকাউন্ট দিয়ে প্রতি মাসে ৪০ হাজার টাকা পর্যন্ত পাঠাতে কোন প্রকার চার্জ প্রদান করতে হবে না (ইএসএসডি এর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য)। আর ‘নগদ’ অ্যাপ দিয়ে যে কোন পরিমান টাকা পাঠাতে পারবেন কোন প্রকার চার্জ প্রদান ছাড়া। এছাড়াও গ্রাহকরা নিজের অ্যাকাউন্ট দিয়ে (ব্যক্তি হতে ব্যক্তি) প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ২ লাখ টাকা পর্যন্ত লেনদেন করতে পারবেন।

আশা করি, আপনারা সবাই সুস্থ এবং নিরাপদে থেকে ব্যবসায়িক কার্য পরিচালনা করবেন। ‘নগদ’-এর সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

ধন্যবাদান্তে

SA Rahman

—————————————————-

শেখ আমিনুর রহমান, চিফ সেলস অফিসার, ‘নগদ’